টেকনাফে পঙ্গপালসদৃশ পোকার হানা

টেকনাফে পঙ্গপালসদৃশ পোকার হানা

পঙ্গপাল হল এমন এক ধরনের পোকা যেটি মধ্যপ্রাচ্য তথা সাহারা মরুভূমি অঞ্চল থেকে এসেছে এই
পোকাটি অনেক ভয়ানক অনেক ক্ষয়ক্ষতি করে.

সেই পঙ্গপাল সম্পর্কে আজকে একটি প্রথম আলো থেকে রেফারেন্স হিসেবে দিলাম

কক্সবাজারের টেকনাফ (Teknaf) সদর ইউনিয়নের (Unioin) লম্বরী গ্রামের একাটি বাড়ির বাগানে পঙ্গপালের মতো ছোট পোকা (Bangla Pok ) গাছপালা খেয়ে ফেলছে। শত শত পোকা (Bangla Pok ) দল বেঁধে গাছের পাতা ও শাখায় বসে একের পর এক গাছের পাতা খেয়ে নষ্ট করছে।
এ ঘটনায় বাড়ির মালিক Facebookএকটি ভিডিও পোস্ট করেন। আর পোকা (Bangla Pok )র এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে জেলা কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে ছবি তুলে কৃষি গবেষণাগারে পাঠানো হয়েছে।

লতাপাতা, আগাছা থেকে শুরু করে শুকনো পাতা, কাঁচা পাতা ও গাছের শাখা-প্রশাখায় সারি সারি পোকা (Bangla Pok )। কোথাও গাছের শাখা আছে পাতা নেই। আবার কোথাও পাতা ঝলসে গেছে। কোথাও পাতায় পোকা (Bangla Pok )য় খাওয়ার মতো ছিদ্রযুক্ত। একটি গাছের নিচে রয়েছে কিছু ছাই, যা কিনা আগুন জ্বালিয়ে পোকা (Bangla Pok ) দমনের চেষ্টা করেও সরানো যায়নি।
ছবি: সংগৃহীতটেকনাফ (Teknaf) সদর ইউনিয়নের (Unioin) লম্বরী গ্রামের সোহেল সিকদার জানান, কয়েক দিন ধরে ভিটের আমগাছের অবস্থা দেখতে গিয়ে তিনি দেখেন শত শত পোকা (Bangla Pok )। আমগাছ, তেরশলগাছসহ অন্য বেশকটি গাছের পাতা নষ্ট হয়ে গেছে। কোথাও কোথাও শাখা ছাড়া কোনো পাতা নেই।

 

তবে দিন দিন পোকা (Bangla Pok )র সংখ্যা যেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে, তেমনি পোকা (Bangla Pok )গুলোর মধ্যে পাখাও দেখা যাচ্ছে। একটা আমগাছের নিচে ঝোপঝাড়ে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পোকা (Bangla Pok )র আক্রমণ থেকে রক্ষার চেষ্টা করেও কাজ হয়নি। দিন দিন পোকা (Bangla Pok )র সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এসব পোকা (Bangla Pok ) দেখতে পঙ্গপালের মতো। তিনি উপায় না দেখে পোকা (Bangla Pok )র ভিডিও Facebook ছড়িয়ে দেন।

 

এটি দেখতে পঙ্গপালের মতো। পঙ্গপালের পাখা থাকে এবং সহজে উড়তে পারে। এটির তেমন পাখা দেখা যায়নি এবং এদিক–ওদিক লাফাতে পারে। তবে যেহেতু কাঁচা পাতা খেয়ে ফেলছে, তাই এটি ক্ষতিকর পোকা (Bangla Pok )।

এ প্রসঙ্গে টেকনাফ (Teknaf) উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. হাদিউর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, এ পোকা (Bangla Pok )র নমুনা সংগ্রহ করে গবেষণাগারের পাঠানো হয়েছে। এখন পযন্ত সেখান থেকে কোনো নির্দেশনা পাওয়া যায়নি। এসব পোকা (Bangla Pok ) যাতে অন্য কোথাও ছড়িয়ে না পড়ে, সে জন্য গতকালসহ কয়েকবার কিটনাশক স্প্রে করা হয়েছে।

Copyright prothomalo.net

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *